প্রতিষ্ঠানের ইতিহাস


প্রতিষ্ঠানের অবস্থান : লালনিরহাট জেলা সদরের কেন্দ্রস্থলে বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন হেডকোয়ার্টার সংলগ্ন এলজিইডি রোড সংলগ্ন মনোরম ও নান্দনিক পরিবেশে প্রতিষ্ঠানটি অবস্থিত। ডাক ও জেলা : লালমনিরহাট।

    ■ বাংলাদেশের উত্তর প্রান্তে তিস্তা-ধরলা বিধৌত সীমান্তবর্তী জেলা লালমনিরহাট। মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ৬ নম্বর সেক্টর দীর্ঘ নয় মাস মুক্ত অঞ্চল হিসেবে স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রত্যক্ষ ভূমিকা পালন করে অপরিসীম অবদান রেখেছে । মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর উত্তম মতিয়ার রহমান ও বীর প্রতীক জনাব আজিজুল হক এ জেলারই শ্রেষ্ঠ সন্তান । ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের অগ্রসেনা নুরুল দ্বীন এবং উপমহাদেশের বাংলা সাহিত্যের পুরোধা সাহিত্য ভূষণ ও সাহিত্য বিশারদ খেতাব প্রাপ্ত প্রখ্যাত সাহিত্যিক, বাংলা সাহিত্যের অমর সৃষ্টি ‘‘স্বর্গ নরক” কবিতার রচয়িতা কবি শেখ ফজলল করিম এ জেলারই কৃতী সন্তান । তিন বিঘা করিডোর, তিস্তা ব্যারেজ, বুড়িমারী স্থল বন্দর এ জেলার উল্লেখযোগ্য দর্শনীয় স্থান । অনেক সুফী-সাধকের পূণ্য ভূমী হিসেবেও লালমনিরহাট জেলা ধন্য।
        ■ লালমনিরহাট জেলায় সকল সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত আদর্শ ও মানসম্পন্ন একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ার লক্ষ্য নিয়েই ১৯৯১ সালে ‘‘ লালমনি শিশুনিকেতন” নামে বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এ্যান্ড কলেজ, লালমনিরহাট এর যাত্রা শুরু হয়। তৎকালীন জেলা প্রশাসক মহোদয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় “রাইফেলস্ পাবলিক শিশুনিকেতন,লালমনিরহাট” হিসেবে পুন:নামকরণ করে একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৯৫ সালে অধিনায়ক, রাইফেলস্ ব্যাটালিয়ন, লালমনিরহাট মহোদয় প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনার সার্বিক দায়িত্বভার নিয়ে প্রতিষ্ঠানটির উন্নয়নে সক্রিয় উদ্যোগ গ্রহণ করেন।
        ■ বর্ডার গাড বাংলাদেশ লালমনিরহাট ব্যাটালিয়নের সদয় পৃষ্ঠপোষকতা ও ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠানটি পর্যায়ক্রমে প্রাথমিক স্তর পেরিয়ে নি¤œমাধ্যমিক এবং নি¤œমাধ্যমিক থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ে উন্নিত হয়ে সরকারী স্বীকৃতি অর্জন করে। বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন এর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর কর্তৃপক্ষের সহৃদয় পৃষ্ঠপোকতায় লালমনিরহাট জেলা সদরের কেন্দ্রস্থলে মনোরম ও নান্দনিক পরিবেশে ব্যাটালিয়ন হেডকোয়ার্টার সংলগ্ন ২.৫৮ একরের সুবিশাল জায়গায় প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরি হয়। অতঃপর বিজিবি কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব ক্যাম্পাসে পাঁচ তলার ভিত্তি দিয়ে ২৬১✕২৮✕১০  ফুট পরিমাপের পাকা ভবনের দ্বিতীয় তলা পর্যন্ত নির্মাণ সম্পন্ন করে নতুন ভবনে একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন, লালমনিরহাট এর সম্মানিত অধিনায়ক মহোদয়ের আন্তরিক প্রচেষ্টায় তৃতীয় তলার নির্মাণ কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানটির পুরাতন ক্যাম্পাসে ৩৪৯✕২০✕৭ ফুট পরিমাপের সেমিপাকা ছাত্রাবাস আছে।
        ■ সম্মানিত অধিনায়ক মহোদয়ের প্রত্যক্ষ তত্ত্ববধান, পরামর্শ, নির্দেশনা এবং সুদক্ষ শিক্ষকমন্ডলীর পেশাগত নিষ্ঠা ও আন্তরিক প্রচেষ্টায় প্রাণ-চঞ্চল শিশু-কিশোরদের কল-কাকলিতে প্রতিষ্ঠানটি এখন সর্বদাই মুখরিত। অত্র প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নকারী প্রতিটি শিশু-কিশোর যেন নিজেকে দক্ষ মানব সম্পদ হিসেবে গড়ে তুলে যোগ্য নাগরিক হয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণে আতœনিয়োগ করতে পারে- সেব্রত নিয়েই পরিচালনা পর্ষদ, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মচারীবৃন্দ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
        ■ সম্মানিত অধিনায়ক মহোদয়ের সূদুর প্রসারী চিন্তা-চেতনা ও প্রচেষ্টায় ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষ হতে প্রতিষ্ঠানটিতে কলেজ শাখার সরকারী অনুমোদন লাভ করেছ এবং একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনিতে মানবিক, বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ন করছে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে লালমনিরহাট জেলার শিক্ষার্থীদের মানসম্মত ও গুণগত শিক্ষাদান কার্যক্রম পরিচালনায় অত্র প্রতিষ্ঠানটি অগ্রণী ভূমিকা পালন করায় পিইসিই, জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় অধ্যয়নকারী শিক্ষার্থীরা সন্তোষজনক ফলাফল অর্জনসহ মেধাবৃত্তি লাভ করে চিকিৎসা বিজ্ঞান, ইঞ্জিনিয়ারিং ও উচ্চশিক্ষায় সফলতা অর্জন করে আসছে।


        ■ মানসম্মত পাঠদানের মাধ্যমে সুপ্ত প্রতিভা ও মেধার বিকাশ ঘটিয়ে অধ্যয়নকারী শিক্ষার্থীদের একটি শক্ত ভিত্তি তৈরী করে শিক্ষার সকল স্তরে প্রকৃত মেধার পরিস্ফুটনের মাধ্যমে অভিষ্ঠ লক্ষ্যে পৌছে দেয়াই বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এ্যান্ড কলেজ, লালমনিরহাট এর  মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।









ড্রপবক্সDropbox